“দক্ষতা অর্জন করুন, নিজেকে উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে তুলুন” এই প্রতিপাদ্য নিয়ে রাজধানীর মৌচাকে ১২ই জুলাই, ২০১৯ বাংলাদেশের একমাত্র আন্তর্জাতিক স্কিল ডেভেলপমেন্ট ট্রেনিং সেন্টার কোডার্সট্রাস্ট এর ৫ম ক্যাম্পাসের শুভ উদ্বোধন ঘোষনা করা হয়। এই মাহেন্দ্রক্ষণে প্রধাণ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জনাব মোঃ আব্দুল করিম, সাবেক মুখ্য সচিব, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জনাব নজরুল ইসলাম খান, সাবেক শিক্ষা সচিব, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার। এছাড়াও অনলাইনে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জনাব আজিজ আহমেদ, কো-ফাউন্ডার এবং চিফ স্ট্রাটেজিস্ট, কোডার্সট্রাস্ট এবং ম্যাডস গ্যালসগার্ড, সিইও, কোডার্সট্রাস্ট। অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন জনাব আতাউল গণি ওসমানী, কান্ট্রি ডিরেক্টর, কোডার্সট্রাস্ট বাংলাদেশ। উক্ত অনুষ্ঠানে দেশব্যাপি প্রশিক্ষণ কার্যক্রম ছড়িয়ে দিতে পর্যায়ক্রমে ঢাকার বাইরেও ক্যাম্পাস স্তাপনের পরিকল্পনা তুলে ধরা হয়।

কোডার্সট্রাস্ট এর কো-ফাউন্ডার আজিজ আহমেদ বলেন, “কোডার্সট্রাস্ট প্রতিষ্টার শুরু থেকেই বাংলাদেশের তরুণ সমাজকে আন্তর্জাতিক মানের দক্ষ কর্মী হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে।” তিনি নতুন প্রজন্মুকে মানস¤পন্ন প্রশিক্ষণের মাধ্যমে সাফল্যের পথে নিয়ে যাওয়ার দৃঢ় আশাবাদ ব্যক্ত করেন। বিশেষতঃ বর্তমানে বাংলাদেশের শিক্ষিত যুবসমাজকে তথ্য-প্রযুক্তি খাতে দক্ষতা অর্জনের উপর গুরুত্ব আরোপ করেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জনাব আব্দুল করিম বলেন, “কোডার্সট্রাস্ট বাংলাদেশ যুগোপযোগী প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দেশের তরুণ সমাজকে কর্মক্ষম হিসেবে গড়ে তুলবে যা বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে ব্যাপক অবদান রাখবে।” তিনি জানান যে অপার সম্বাভনাময় এই বাংলাদেশে সম্ভাবনাকে কাজে লাগাতে হলে দরকার মানসম্মত কারিগরি শিক্ষা। উচ্চ মানসম্মত প্রশিক্ষণ কার্যক্রম পরিচালনার জন্য তিনি কোডার্সট্রাস্টকে ধন্যবাদ জানান।

কোডার্সট্রাস্টের সিইও ম্যাডস গ্যালসগার্ড বলেন, “কোডার্সট্রাস্ট আন্তর্জাতিক পর্যায়ে অত্যন্ত সুনামের সাথে বিভিন্ন দেশে কাজ করে যাচ্ছে।” তিনি বলেন খুব শীঘ্রুই কোডার্সট্রাস্ট বাংলাদেশ বিশ্বের বিখ্যাত ইন্সটিটিউশনদের সাথে যৌথভাবে দক্ষতা উন্নয়নে প্রশিক্ষণ এবং সনদ প্রদান করবে।

সাবেক শিক্ষা সচিব জনাব নজরুল ইসালাম খান তাঁর বক্তব্যে বলেন, “বিকল্প আয়ের উৎস হিসেবে ফ্রিল্যান্সিং একটি ব্যাপক জনপ্রিয় মাধ্যম। বর্তমান তথ্য-প্রযুক্তির অপার সম্বাভনাকে কাজে লাগিয়ে লেখাপড়ার পাশাপাশি কিংবা অবসরের পরেও উপার্জন করা সম্ভব।” তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন যে কোডার্সট্রাস্ট বাংলাদেশ তার প্রশিক্ষণ ক্ষেত্র আরো বিস্তৃত করবে এবং বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলা-উপজেলায় তার কার্যক্রম ছড়িয়ে দেবে।

অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে কেক কেটে সম্মানিত অতিথীরা কোডার্সট্রাস্ট বাংলাদেশ এর মৌচাক ক্যা¤পাসের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ঘোষণা করেন। সম্মানিত অতিথিবৃন্দ পরে নতুন ক্যাম্পাসের বিভিন্ন ক্লাসরুম পরিদর্শন করেন। অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে কোডার্সট্রাস্ট বাংলাদেশ এর মৌচাক ক্যা¤পাসের শিক্ষার্থী, কোডার্সট্রাস্ট বাংলাদেশ এর সকল কর্মকর্তা এবং বিভিন্ন পেশাজীবী ও সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

About Author

Lorem ipsum dolor sit amet.

Leave Comment

Do you have something to sell?

Post your ad on Kolotan.com

Post an ad now!
Back to top
Close Offcanvas Sidebar